ঢাকা সোমবার,৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | রাত ১:১৬ মিনিট ।

খাগড়াছড়িতে হতে আটক‘প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তিকারী অভিযুক্ত ফেসবুক মালিক আব্দুল কাইয়ুম ফতেপুরি “

Post in- জুলাই ৬, ২০২০ by - admin

Categories: খাগড়াছড়ি খাগড়াছড়ি সদর

Tags:

Views : 61

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধিঃ

আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক এ্যাকাউন্টে লিখেছিলেন, ‘আবোল তাবোল উইকেট পড়তেছে, আমরা সরাসরি জননীর আশায় আছি। এমন ধরনের পোস্ট দিয়ে নিজ এলাকা হতে উধাও,ফলাফলে উক্ত এই এলাকার সর্বসাধারণ ছাত্রনেতাগণ পোস্টের বিষয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে হাটহাজারী থানায় পৃথক পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য মোনায়েম আহমেদ সুহান, উপজেলা ছাত্রলীগের ত্রাণ ও দুর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক আবদুল্লাহ আল মামুন জয়, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমান, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা কে আই জিহান, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান হায়াত।

সন্দীপের মসজিদের ইমামের এমন এই প্রকার ফেসবুকে পোস্টের কারণে‘প্রধানমন্ত্রীকে কটুক্তি’র অভিযোগে ছাত্রলীগের সকল নেতাদের দায়েরকৃত মামলায় চট্টগ্রামের সন্দ্বীপের মসজিদে কর্মরত এক ইমামকে খাগড়াছড়ি জেলায় সদর হতে আটক করা হয়েছে। মামলা হওয়ার পর ওই ব্যক্তি সন্দ্বীপ থেকে খাগড়াছড়িতে আত্মগোপন থেকে ইলেকট্রিশিয়ানের কাজ করে।

ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে অবমাননাকর ও মানহানিকর ও দূরসন্ধিমূলক পোস্ট’ দেওয়ায় আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরী নামের এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে গত ১৪ জুন রাতে হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগের পাঁচজন নেতা পৃথক পৃথকভাবে অভিযোগ দায়ের করেন।

পরে হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেলও একটি মানহানির মামলা করেন। ১৯ জুন ছাত্রলীগ সভাপতির অভিযোগটি আমলে নিয়ে সেটিই মামলা হিসেবে লিপিবদ্ধ করা হয়। অভিযোগে বলা হয়, আব্দুল কাইয়ুম ফতেপুরি ফেসবুকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিম ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ মো. আব্দুল্লাহকে নিয়ে উপহাস করেছেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মৃত্যুকামনা করেছেন।

গতকাল ৫ জুলাই ২০২০ রোজ রবিবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করে হাটহাজারী থানার ওসি মাসুদ আলম জানান, পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) রাজিব শর্মার নেতৃত্বে থানা পুলিশের একটি দল খাগড়াছড়ি সদর থেকে তাকে গ্রেফতার করে।
উল্লেখ্যে যে, আবদুল কাইয়ুম ফতেপুরী নামের ওই ব্যক্তির বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের লতিফপাড়া এলাকায়।

 

আরো পড়ুন-

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *