ঢাকা বৃহস্পতিবার,৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৫০ মিনিট ।

মহালছড়ি উপজেলায় ইউএনডিপি’র কর্তৃক ত্রাণ বিতরণ তালিকা তৈরিসহ সমবন্টন না থাকায় চরম অভিযোগ।

Post in- আগস্ট ১১, ২০২০ by - admin

Categories: মহালছড়ি

Tags:

Views : 59

(মহালছড়ি প্রতিনিধি)

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়ি উপজেলায় আন্তর্জাতিক এনজিও সংস্থা ইউএনডিপি কর্তৃক করোনা কালীন যেসব ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করছেন তার তালিকা প্রস্তুত করার বেলায় ব্যাপক পক্ষপাতিত্বের আশ্রয় গ্রহণ করায় বর্তমানে উপজেলার বিরাজমান মানুষ মানুষে সৌভ্রাতৃত্ব পূর্ণ সম্প্রীতির সহাবস্থানের নিয়মনিতির চরম লংঘন করে উদ্দেশ্যমূলকভাবে একটা বিশেষ গোষ্ঠির মানুষকে বিশেষ সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে এক মারাত্মক অভিযোগের কথা এলাকার জন সাধারণের মুখে মুখে ভেসে বেড়াচ্ছে।

সচেতন এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, এসব ত্রাণ বিতরণের তালিকা প্রস্তুতের ক্ষেত্রে নির্বাচিত স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের লোক দেখানো নামওয়াস্তে বেধেঁ দেয়া সংখ্যার তালিকা করতে দায়িত্ব দেয়া হয়। কিন্তু ইউএনডিপি কর্তৃক প্রদত্ত ত্রাণ বিতরণের স্থান ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনকে বেছে নেয়া হয়। নিয়মনীতি ও সমবন্টনের তালিকা তোয়াক্কা না করে ইউএনডিপির কর্মরত সদস্য বা সমিতির সদস্যেদের কর্তৃক তালিকা তৈরি করা হয়।

মহালছড়ি উপজেলায় ইউএনডিপি’র কর্তৃক ত্রাণ বিতরণ তালিকা তৈরিসহ সমবন্টন না থাকায় চরম অভিযোগ।

জনপ্রতিনিধি ব্যতিত প্রস্তুতকৃত তালিকার বাইরে হাজার হাজার মানুষের যে তালিকা সে তালিকার পুরোটাতেই অসম্প্রদায়িক সম্প্রীতির প্রতিফলন ফুটে উঠেনি ফলে প্রায় এলাকার জনগণের মাঝে গুরুতর অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। সেই তালিকায় সমিতির সদস্যে বলে একই পরিবারের সকল সদস্যসহ আত্মীয় স্বজনদের মাঝে বিতরণ করা হয়। ফলে প্রায় এলাকার সত্যিকার অর্থে গরীব দু:খী জনগণ ত্রাণ হতে বঞ্চিত ও উপেক্ষিত।
সাধারণ মানুষের পক্ষ থেকে এলাকায় ইউএনডিপি-র লোকজনের এ ধরনের পক্ষপাত মূলক আচরণের অভিযোগ অনেক পুরানো তাঁরা এলাকার সরকারের স্থানীয় প্রশাসন, আইন শৃঙ্খলা ও নিরাপত্তা রক্ষা বাহিনী, জনপ্রতিনিধি এবং গনমাধ্যম এসব কোনটাকেই গুরুত্ব দিতে নারাজ।

তাঁরা তাঁদের খেয়াল খুশিমতো এলাকায় সবকিছু করে থাকেন। বিষয়টা এলাকার সচেতন সাধারণ মানুষের নজরে আসে ৮ আগষ্ট শনিবার মহালছড়ি সদর ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গনে ইউএনডিপি এর ত্রাণ বিতরণের সময় অভিযোগে প্রকাশ এসময় ত্রাণ নিতে আসা উপস্থিত ছয় সাতশ মানুষের মাঝে অ-উপজাতীয় মানুষের সংখ্যা তুলনামূলকভাবে অনেক কম পরিলক্ষিত হওয়ায় এলাকায় এক ধরনের চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। এব্যাপারে সদর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ও মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি রতন কুমার শীল ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে বলেন আন্তর্জাতিক এনজিও সংস্থা ইউএনডিপি’র এমন পক্ষপাতিত্বের আচরনের কারনে এলাকায় করোনার ত্রাণ সামগ্রীর সুষম বন্টন হয়নি। প্রকৃতপক্ষে পাওয়ার যোগ্য এমন গরীব দু:খী জনগণ ত্রাণ হতে বঞ্চিত ও উপেক্ষিত।

এ ব্যাপারে এলাকার গনমাধ্যম কর্মীদের নিকট এ ধরনের পক্ষপাত মূলক ভূমিকার সরাসরি সমালোচনা করেছেন মাইসছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সাজাই মারমা ও সদস্য চম্পা মারমা বলেন তালিকা সমবন্টনের বিষয়টা নিয়ে উপজেলার অ-উপজাতীয় জনগোষ্ঠির মধ্যে চরম অসন্তোষ বিরাজ করছে। তাই মাইসছড়িতে ত্রাণ বিতরণ স্থগিত করা হয়। ইউএনডিপি-র কর্মকর্তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে পরবর্তীতে মাইসছড়ি ইউনিয়ন ও ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে বিতরণ স্থগিতাদেশ উঠে গেলে বিতরণের সময় জানিয়ে দেয়া হবে।
উক্ত এই ত্রাণ বিতরণে সকল জনগণের মাঝে সমবন্টনে এলাকার গরীব দু:খী অবহেলিত, বঞ্চিত সাধারণ জনগণ আশা করছেন যে পক্ষপাতিত্ব ত্রাণ বন্টনের ক্ষেত্রে জনপ্রতিনিধিগণ ও সরকারের প্রশাসনিক কর্মকর্তাগণ আলোচনাসহিত সুষ্ঠু পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *