ঢাকা বৃহস্পতিবার,৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | বিকাল ৩:৫৩ মিনিট ।

বান্দরবানে দীর্ঘ পাঁচ মাস পর ২১ আগষ্ট খুলছে পর্যটন

Post in- আগস্ট ২০, ২০২০ by - admin

Categories: বান্দরবান সদর

Tags:

Views : 63

উথোয়াইচিং মারমা।
বান্দরবান প্রতিনিধি।

বান্দরবানে দীর্ঘ ৫মাস পরে ২১ আগষ্ট খুলছে সকল পর্যটন কেন্দ্র। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে দীর্ঘ পাঁচ মাস বন্ধ থাকার পর বান্দরবানের সকল পর্যটন কেন্দ্রগুলো কাল শুক্রবার থেকে খুলে দেওয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত করোনা ভাইরাস মনিটরিং কমিটির এক জরুরি বৈঠকের পর প্রশাসন এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

বান্দরবানে দীর্ঘ পাঁচ মাস পর ২১ আগষ্ট খুলছে পর্যটনবান্দরবান জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম জানিয়েছেন, দেশের অন্যান্য জায়গায় পর্যটন কেন্দ্রগুলো খুলে দেওয়া হলেও বান্দরবানে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ না কমার কারণে এতদিন পর্যটনকেন্দ্রসহ হোটেল-মোটেলগুলো বন্ধ রাখা হয়েছিল। তবে সংক্রমণ অনেকটা কমে আসায় শর্তসাপেক্ষে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুক্রবার থেকে জেলার সকল পর্যটন কেন্দ্র ও হোটেল-মোটেলগুলো খুলে দেওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তবে সংক্রমণ বাড়লে পূর্বের লকডাউন অবস্থায় ফিরিয়ে নেওয়া হবে বলে জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন।

এদিকে প্রশাসনের এই সিদ্ধান্তকে বান্দরবানের পর্যটন ব্যবসায়ীরা স্বাগত জানিয়েছেন। জেলার হোটেল-মোটেল মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জানিয়েছেন, করোনাভাইরাসের কারণে বান্দরবানে সম্ভাবনাময় পর্যটন শিল্প মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অনেক হোটেল মোটেল রেস্টুরেন্ট বন্ধ হয়ে গেছে। অনেক কর্মচারী ছাঁটাই করা হয়েছে। তবে সংক্রমণ কমে আসায় প্রশাসনের এই সিদ্ধান্ত পর্যটন শিল্পকে আগের মতো ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবে ব্যবসায়ীরা।

বান্দরবানে দীর্ঘ পাঁচ মাস পর ২১ আগষ্ট খুলছে পর্যটন

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শামীম হোসেন জানিয়েছেন, পর্যটন শিল্প নির্ভর প্রতিটি সেক্টরের জন্য আলাদা আলাদা শর্ত আরোপ করা হয়েছে। এসব শর্ত গুলো সংশ্লিষ্টদের অবশ্যই মেনে চলতে হবে সেই সাথে স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

উল্লেখ্য করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত ২২ মার্চ থেকে লকডাউন করে বান্দরবানের সকল পর্যটন কেন্দ্র এবং হোটেল-মোটেল বন্ধ করে দেওয়া দেয় প্রশাসন। পার্বত্য জেলা বান্দরবানে এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ৬৩৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন চারজন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *